মসজিদ নিয়ে দোটানায় এলাকাবাসী

পপুলার বিডিনিউজ রিপোর্ট
আপডেটঃ জুন ১৮, ২০২০ | ৮:৫৯
পপুলার বিডিনিউজ রিপোর্ট
আপডেটঃ জুন ১৮, ২০২০ | ৮:৫৯
Link Copied!

হাজীগঞ্জ পৌরসভার টোরাগড় কাজী বাড়ির মাওলানা আবু সুফিয়ান মসজিদের মোতাওয়াল্লী হতে চান। আর সে জন্য এখন বদরপুর এলাকায় মসজিদে গাউছুল আজম (রাহ.) এর সামনে মাদ্রাসার গেইটে তালা ঝুলছে। এতে করে মুসল্লীরা এখন মসজিদে প্রবেশ করতে দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

জানা গেছে, সরকারি বিএস (৮২০) খতিয়ানভুক্ত ১৪ শতাংশ ভূমি পৌরসভাস্থ ৭নং ওয়ার্ড বদরপুর এলাকায় মসজিদে গাউছুল আজম (রাহ.) এর নামে রয়েছে। যাহা বদরপুর মসজিদ কমিটির পক্ষে সেক্রেটারি গ্রহণ করে। ওই সম্পত্তির দাতা ফয়জুন্নেছা বিবি গং, কলিম উদ্দিন বেপারি গং ও আব্দুল হক বেপারি গং।

দাতাগণের উত্তরসূরীগণের কাছ থেকে ভুয়া দাতা বা দানপত্র দলিল করে মাওলানা আবু সুফিয়ান আল ক্বাদরী মোতওয়াল্লী দাবী করেন। তিনি নতুনভাবে খারিজ খতিয়ান করায় ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠছেন এলাকাবাসী। এই বিষয়ে কয়েকটি মামলা বিজ্ঞ আদালতে চলমান রয়েছে। ফলে এটি সমাধানে আদালতের সু-বিচার প্রার্থনা করেন স্থানীয় মুসল্লীরা।

বিজ্ঞাপন

এই বিষয়ে দাতাগণের উত্তরসূরীদের একজন মো. শামছুল বেপারীর সাথে কথা হয়। তিনি বলেন, আমি প্রতারণার শিকার। আমাদেরকে সরকারিকরণের কথা বলে স্বাক্ষর নিয়েছে। কিন্তু সুফিয়ান আমার বাবার দেয়া সম্পত্তি পুনরায় আমাদের কাছ থেকে নিতে অপকৌশল করেছে। আমরা এর সুবিচার প্রার্থনা করি।

এদিকে মাওলানা আবু সুফিয়ানের ছেলে রহমত উল্লাহ বলেন, শামছুল বেপারী সম্পত্তি আমাদের কাছে বিক্রি করেছে। যা রেজিষ্ট্রি অফিসে লিপিবদ্ধ আছে।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

ট্যাগ: