সেতুটি মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ, দুর্ঘটনার আশঙ্কা

মাহফুজ মল্লিক
আপডেটঃ আগস্ট ২৩, ২০২০ | ১০:১৮
মাহফুজ মল্লিক
আপডেটঃ আগস্ট ২৩, ২০২০ | ১০:১৮
Link Copied!
মতলব-বাবুরহাট সড়কের নবকলস ও ওয়াপদা সংলগ্ন এলাকার পুরোনো সেতু এটি। বিগত প্রায় ৫০ বছর আগে সেতুটি নির্মাণ হয়েছে বলে ধারণা এলাকাবাসীর। সেতুটির নিচের দু’ পাশের মাটি সরে যাওয়ায় মারাত্মক ঝুকিতে রয়েছে।
গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টি ও বন্যার পানি বেড়ে যাওয়ায় সেতুটির পশ্চিম পাশে রাস্তায় পানি জমে দুটি বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে প্রতিদিনই এ সড়ক দিয়ে যাতায়েতকারী যানবাহন গর্তে পড়ে উল্টে গিয়ে আহত হচ্ছে যাত্রীসাধারণ। সেতুটি খুবই জনগুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় প্রতিদিন হাজারো মানুষ আসা-যাওয়া করছে।
এছাড়া মতলব আইসিডিডিআরবি (কলেরা) হাসপাতালে বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে আগত রুগীদের আসা যাওয়ার একমাত্র সড়ক হচ্ছে এটি। গতকাল রবিবার বিকেলে ঢাকা থেকে একটি মালবাহী ট্রাক মতলব বাজারে যাওয়ার পথে এই সেতুর পাশে সৃষ্টি হওয়া গর্তে পড়ে যায়। এতে মতলব এবং চাঁদপুরগামী শতাধিক যানবাহন আটকা পড়ে যায়। অল্পের জন্য বড় ধরণের দূর্ঘটনা ঘটেনি। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ট্রাকটি ওই গর্ত থেকে উদ্ধার করতে পারেনি।
সেতুটিতে বড় ধরণের দূর্ঘটনা ঘটার আগেই যেনো সড়ক ও জনপদ বিভাগ এই ব্যাপারে দ্রুত কার্যকরি ব্যবস্থা নিবেন বলে ভুক্তভোগী জনসাধারণের দাবী।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

ট্যাগ: